ঝিনাইদহে বন্দুকযুদ্ধে দুই চরমপন্থী নিহত

130213_EXP_Gunfight.jpg.CROP.rectangle3-largeঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটেলিয়ন-র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিষিদ্ধ চরমপন্থি সংগঠন পুর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টির আঞ্চলিক নেতা মাইদুল ইসলাম ওরফে রানা ও তার সহযোগি আলিম নিহত হয়েছেন । এসময় র‌্যাবের ৩ সদস্য আহত হয়েছে ।

ঘটনাস্থল থেকে ২টি বন্দুক, একটি পিস্তল, ১৪ রাউন্ড গুলি ও একটি হাসুয়া উদ্ধার করেছে র‌্যাব । গতরাত ১টার দিকে কোটচাঁদপুর উপজেলার কুশনা ইউনিয়নের বান্দাগলির বটতলা নামক স্থানে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। উদ্ধার করা হয়েছে।
র‌্যাব জানিয়েছে, নিহত মাইদুল ইসলাম ওরফে রানার নামে ১৪টি হত্যা মামলা ও আলিমের নামে ১২টি হত্যা সহ ১৫টি মামলা রয়েছে । রানা কোটচাঁদপুর উপজেলার কুশনা ইউনিয়নের বক্সিপুর গ্রামের ফকির চাঁদ মন্ডলের ছেলে ও আলিম একই ইউনিয়নের বহরমপুর গ্রামের ছলেমান মন্ডলের ছেলে।

ঝিনাইদহ র‌্যাবের অধিনায়ক মেজর মনির আহমেদ জানান, তারা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন একদল অস্ত্রধারী কুশনা ইউনিয়নের বান্দাগলির বটতলায় জড়ো হচ্ছে। খবর পেয়ে র‌্যাব ওই এলাকায় অভিযানে যায়। অস্ত্রধারীরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে র‌্যাবকে লক্ষ করে গুলি ছোঁড়ে। এসময় র‌্যাবও চালায় পাল্টা গুলি চালালে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুই অস্ত্রধারী মাইদুল ইসলাম ওরফে রানা ও আলিম আহত হয়। বাকিরা অস্ত্রধারীরা পিছু হটে যায়।

আহতদেরকে উদ্ধার করে কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে ডাক্তার তাদেরকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় র‌্যাবের কনস্টেবল কালাম, রফিক ও হাবিলদার মহসিন আহত হয়েছে। তাদেরকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি ।

মেজর মনির আহমেদ জানান, নিহত মাইদুল ইসলাম ওরফে রানা নিষিদ্ধ চরমপন্থি পুর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টির আঞ্চলিকনেতা ও আলিম তার সহযোগি হিসাবে কাজ করতো । তারা দীর্ঘদিন জেল খেটে বের হয়ে এসে আবারো অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Radio Today 89.6fm