সৌদি আরবে হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু

এম ওয়াই আলাউদ্দিন, সৌদি আরব প্রতিনিধি ও শাহেদুর রহমান : হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে এখন সৌদি আরবের পবিত্র মক্কা নগরীর ঐতিহাসিক আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ২০ লক্ষাধিক মুসলমান।

স্থানীয় সময় আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সমবেত হাজীদের উদ্দেশ্যে হজের খুতবা দেন সৌদি আরবের গ্র্যান্ড মুফতি। খুতবায় মুসলিম উম্মাহসহ বিশ্ববাসীর সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধ কামনা করা হয়।

খুতবার পর একইসাথে যোহর ও আসরের নামাজ আদায় করেন হাজীরা। সূর্যাস্ত পর্যন্ত আরাফাতের ময়দানে অবস্থানের পর মুজদালিফার উদ্দ্যেশে রওনা দেবেন তাঁরা।

Screenshot_1

আমি হাজির! হে আল্লাহ আমি হাজির! তোমার কোন শরিক নেই; সব প্রশংসা ও নিয়ামত শুধুই তোমার। সব সাম্রাজ্য তোমার। মহান আল্লাহর কাছে পুরিপূর্ণরুপে আত্মসমর্পনের এই ঘোষনার পাশপাশি জীবনের সব পাপ তাপের জন্য তাঁর ক্ষমা ও রহমত লাভের আশায় হাজীদের সমবেত কন্ঠের এই তালবিয়ায় প্রকম্পিত হচ্ছে আরাফাতের ময়দান।

আজ থেকে প্রায় ১৪০০ বছর আগে ৬৩২ খ্রিষ্টাব্দে এই আরাফার জাবালে রহমত বা রহমতের পাহাড়ে দাঁড়িয়ে ঐতিহাসিক বিদায় হজের ভাষন দিয়েছিলেন মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। এরই ধারাবাহিকতায় আরাফাহ ময়দানের অদূরে মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা দেন সৌদি গ্র্যান্ড মুফতি শায়খ ডক্টর সাদ আল আসরি।

এসময় মিয়ানমার, ফিলিস্তিন, সিরিয়াসহ বিশ্বজুড়ে মুসলিম উম্মাহ নির্যাতিত হচ্ছে উল্লেখ করে এরজন্য মুসলমানদের অনৈক্যকে দায়ী করেন তিনি। তাগিদ দেন ঐক্যের। বলেন, বিশ্ব মুসলিম ঐক্যবদ্ধ হলে তারা আবার ফিরে পাবে তাদের হারানো ক্ষমতা ও মর্যাদা।

খুতবার পর একইসাথে জোহর ও আসরের নামাজ আদায় করেন হাজীরা।

নামাজের পর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত আরাফাতের ময়দানেই অবস্থান করবেন তাঁরা। এসময় ইবাদত বন্দেগি, জিকির আসকার ও পাপমুক্তি ও আল্লাহর রহমত লাভের আশায় দোয়া মুনাজাতে মশগুল থাকবেন হাজীরা।

হজের আহকাম অনুযায়ী সুর্যাস্তের পর মুজদালিফায় গিয়ে একত্রে মাগরিব ও এশার নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। মুজদালিফা থেকে পাথর সংগ্রহ করে আগামীকাল মিনায় ফিরে যাবেন তারা। মিনায় শয়তানকে পাথর নিক্ষেপ ও পশু কুরবানীর পর মাথা মুন্ডন করবেন।

এরপর মক্কায় ফিরে পবিত্র ক্বাবাঘর তাওয়াফ ও সাঈ বা সাফা-মারওয়া পাহাড় সাতবার প্রদক্ষিন করে আবার মিনায় ফিরে যাবেন।

মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিরতা ও সম্প্রতি পবিত্র ক্বাবা শরিফে সন্ত্রাসী হামলা প্রচেষ্টার পরিপ্রেক্ষিতে এবার চার স্তরের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে সৌদি সরকার। বাংলাদেশ থেকে এবছর পবিত্র হজব্রত পালন করছেন প্রায় এক লাখ ত্রিশ হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Radio Today 89.6fm