যশোরে জঙ্গি আস্তানায় তিন শিশুসহ খাদিজার আত্মসমর্পণ

Presentation1যশোরে জঙ্গি আস্তানা থেকে তিন শিশুসহ খাদিজা নামের এক নারী আত্মসমর্পণ করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। খাদিজা রাজধানীর গুলশানে স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলায় জড়িত নিহত জঙ্গি নুরুল ইসলাম মারজানের বোন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। দুপুর ৩টা পাঁচ মিনিটে শহরের ঘোপ নওয়াপাড়া রোড জামে মসজিদের পেছনের একটি চারতলা বাড়ি থেকে খাদিজা আত্মসমর্পণ করেন বলে জানান যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

এসপি গণমাধ্যমকে আরো জানান, দুপুরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করেন খাদিজা। তাঁর সঙ্গে ছিল তিন শিশু। এ সময় সেখানে খাদিজার দেওয়া শর্ত অনুযায়ী, তাঁর মা-বাবা উপস্থিত ছিলেন। বর্তমানে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিট বাড়িটিতে অনুসন্ধান চালাচ্ছে।

এর আগে, রোববার রাত ১০টার পর থেকে শহরের ঘোপ নওয়াপাড়া রোড জামে মসজিদের পেছনে ওই বাড়ি ঘিরে রাখা হয়। আজ সকালে সেখানে পৌঁছান পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ও বিশেষায়িত বাহিনী সোয়াটের সদস্যরা। বাড়িটি থেকে বের করে আনা হয় সাধারণ বাসিন্দাদের। সেখানে অবস্থান নেয় সোয়াটের একটি দল।

পুলিশের পক্ষ থেকে খাদিজাকে আত্মসমর্পণের জন্য মাইকিং করা হয়। পরে খাদিজা পুলিশকে জানায়, মা-বাবার সামনে আত্মসমর্পণ করবেন তিনি। শর্ত অনুযায়ী, পাবনা থেকে তাঁর মা-বাবাকে যশোর নিয়ে যাওয়া হয়।

বিকাল পৌনে ৩টার দিকে পুলিশের একটি গাড়িতে করে তারা ওই বাড়িতে পৌঁছানোর কিছুক্ষণ পর আরেকটি গাড়ি সেখানে নেওয়া হয় এবং মিনিট পনের পর দ্বিতীয় গাড়িতে করে খাদিজা ও তার সন্তানদের নেওয়া হয় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Radio Today 89.6fm