লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা : আটক পাঁচ

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে মো. রিয়াজ নামের ১৪ বছর বয়সের এক হোটেল শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে হোটেল মালিক’সহ একই হোটেলের অপর এক শ্রমিকের বিরুদ্ধে।

গতকাল সোমবার রাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পৌর শহরের আলেকজান্ডার বাজারের গ্রামীন হোটেলে এ ঘটনা ঘটে।

এ দিকে নোয়াখালী জোনরেল হাসপাতালে নিহত রিয়াজের মরদেহ রেখে পালিয়ে গেছে মালিকপক্ষ বলে অভিযোগ করেন স্বজনরা।

ঘটনার পর অভিযুক্ত হোটেল শ্রমিক আবির হোসেনসহ আরো ৪ জনকে আটক করছে পুলিশ।

নিহত রিয়াজ পৌর শহরের শিক্ষা গ্রামের সফু মাঝির ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়, নদী ভাঙ্গা গৃহহীন জেলে পরিবারের সন্তান রিয়াজ।

দরিদ্র পরিবারের কারণে ৫ম শ্রেণীর বেশী পড়ালেখা করতে পারেনি সে।

পরিবারের অভাব মেটাতে ৩ বছর আগে আলেকজান্ডার বাজারে গ্রামীন হোটেলে শ্রমিক হিসেবে চাকুরী নেন রিয়াজ।

প্রতিদিন সকাল ৮টায় কাজে বের হয়ে রাত ১০ টায় বাড়ী ফেরা হতো তার।

গতরাতে হোটেলের রান্না ঘরে তার সহকর্মী আবিরের সঙ্গে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে আবির হোসেন ও হোটেল মালিক জাহেরসহ তাকে মারধর করে।

এতে রিয়াজ গুরুতর আহত হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে অবস্থার অবনতি হলে রিয়াজ হোসেনকে নেয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

এসময় হাসপাতালে তার মরদেহ ফেলে রেখে মালিকপক্ষসহ অন্যরা পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন স্বজনরা।

এ ঘটনার বিচার দাবী করেন নিহতের মা-বাবাসহ স্বজন ও এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গ্রামীন হোটেলের কর্মচারী রিয়াজকে মারধর করলে সে মারা যায়।

এঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত আবিরকে আটক করে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হোটেল মালিকের ভাই জগলুসহ আরো ৪ জনকে আটক করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Radio Today 89.6fm