রাজধানীর বাজারে শীতকালীন সবজ্বির পর্যাপ্ত সরবরাহ; তবু দাম চড়া

মোসকায়েত মাশরেক।

রাজধানীর বাজারে শীতকালীন সবজ্বির পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে। যদিও দু-একটি ছাড়া বেশিরভাগ সবজ্বিই বিক্রি হচেছ বেশ চড়া দামে। সেই সাথে আবার বেড়েছে পেঁয়াজের ঝাঁঝ। আর গেল সপ্তাহের তুলনায় প্রতি কেজি চালের দাম বেড়েছে এক টাকা করে। ফলে ক্রেতাদের ভোগান্তি অব্যাহত রয়েছে।

বাংলা পঞ্জিকার হিসেবে এখন অগ্রহায়নের মাঝামাঝি। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রতিদিনই রাজধানীতে আসছে, ফুল কপি, বাঁধা কপি, ওল কপি, মুলা, পালং শাক, বেগুন, টমেটোসহ শীতকালিন নানা সবজ্বি। রাজধানীতে আসার পর আড়তদার, পাইকার হয়ে খুচরা বিক্রেতার কাছ থেকে যখন ভোক্তার হাতে সেই সবজ্বি পৌছায়। ততক্ষনে তিন থেকে চার হাত বদলের ঘটনা ঘটে। এই হাত বদলের সাথে সাথে ওই সবজ্বির দামও বেড়ে যায় দুই থেকে তিনগুন। ফল সরুপ কৃষকের বিক্রি করা ৮ টাকার বাধাকপি ভোক্তাকে কিনতে হচ্ছে ৩০ টাকায়। তেমনি ২০ টাকার বেগুন ৫০ টাকায়।

যারা শরীরের ঘাম ঝরিয়ে আর গাটের পয়সা বিনিয়োগ করে এই সবজ্বি উৎপাদন করেন তারা হচ্ছেন বঞ্চিত। সেই সাথে রাজধানীতে শীতের সবজ্বি কিনতে ভোক্তাকে গুনতে হচ্ছে উচ্চ মুল্য। ক্রেতারা বলছেন, সরকারের তরফ থেকে কোন ধরনের মনিটরিং-এর ব্যবস্থা না থাকায় পরিস্থিতি নাজুক দিকে মোড় নিচ্ছে।

রাজধানীর কয়েকটি বাজারের ছোট বড় বেশ‘কটি দোকান ঘুরে জানা গেল এক মাসে পেঁয়াজের দাম হয়েছে প্রায় দ্বিগুন। সেই সাথে চাল কিনতে ক্রেতাদের গুনতে হচ্ছে আগের বাড়তি দামই।

তবে আশার কথা প্রচুর সরবরাহ থাকায় বাজারগুলোতে মাছ বিক্রি হচ্ছে বেশ সহনীয় দামে। সেই সাথে সব ধরনের মাংস, মুরগি, ডিম, ডাল তেলসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Radio Today 89.6fm